Home / Indian Item / পোলাও এর সাথে কবুতরের রোস্ট এবার জমবে খাওয়া- Roast of pigeon with pulao.

পোলাও এর সাথে কবুতরের রোস্ট এবার জমবে খাওয়া- Roast of pigeon with pulao.

ভোজনরসিক মাত্রই নতুন খাবারের খোঁজে ছুটে চলেন এখানে-সেখানে তবে কচি কবুতরের মাংস খেতে যেমন মজার, তেমনি শরীরের জন্য বেশ পুষ্টিকর । যেকোনো পাখির মাংসের তুলনায় কবুতরের মাংসে প্রোটিনের পরিমাণ বেশি থাকে । তাই বাড়িতে পরিবারের সবার জন্য  কোন এক ছুটির দিনে মজাদার এই  কবুতরের রোস্ট রান্কোনা করতে পারেন । একবার তৈরি করে খেয়েই দেখুন কবুতরের রোস্ট আশা করি ভাল লাগবে ।

বুতরের রোস্ট রেসিপি টা শেয়ার দিয়ে সেভ করে রাখুন নয়তো পরে খুঁজে পাবেন না ।

কবুতরের-রোস্ট রেসিপি-roast-of-pigeon recipe-

উপকরন এবং পরিমাণ ঃ 

১. কবুতর  ৪ পিছ

২. আদা বাটা- হাফ চামচ

৩. রসুন বাটা- হাফ চামচ

৪. জিরা বাটা- হাফ চা চামচ

৫. পিয়াজ বাটা- ১ চামচ

৬. গোল্মরিচের গুঁড়া- হাফ চা চামচ

৭. চিনি- চা চামচ

৮. সয়া সস- ২ টেবিল চামচ ( সয়া সস দেয়ার আগে ভাল করে জাকিয়ে নিবেন)

৯. তেল- পরিমানমত

১০. তেজপাতা- ১-২ টি

১০. এলাচ- ২-৩ টি

১১. দারচিনি- ১ পিছ

১২. লবণ- পরিমানমত

১৩. হ্লুদ গুঁড়া – আদা চা চামচ

কবুতরের-রোস্ট রেসিপি-roast-of-pigeon recipe-

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে ভাল করে কবুতর চামড়াসহ আস্ত বেছে পরিষ্কার করে নিন । এবার আস্ত গরমমসলা বাদে সব মসলা দিয়ে মাখিয়ে দু’তিন ঘণ্টা মেরিনেইট করে রাখুন ফ্রিজে রেখে দিন । কড়াইয়েতে তেল দিয়ে দিন এবং তা গরম করে পেঁয়াজকুচি ভেজে নিন এবং মেরিনেইট করা কবুতর কড়াইয়ে দিয়ে দিন এবং  লাল লাল করে কিছুক্ষণ ভাজুন । এবার ভাজা কবুতর উঠিয়ে আলাদা পাত্রে তুলে রাখুন। বাকি মসলা দিয়ে দিন এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা দিয়ে দিন এবং সামান্ন পানি দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করুন । মসলা কষে, তেল উঠে আসলে কবুতর দিন । মাংস কষানো হলে পরিমাণমতো পানি দিয়ে ঢেকে দিন । ঝোল মাখা মাখা হলে নামিয়ে ফেলুন । উপরে কিছু বেরেস্তা ছিটিয়ে দিন দেখতে অনেক সুন্দর লাগবে ।

পোলাও , খিচুড়ি কিংবা গরম ভাত দিয়ে পরিবেশন করুন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *